বাগেরহাটে ট্রাকের চাপায় পুলিশের এসআই নিহত

বাগেরহাট প্রতিনিধি : বাগেরহাটে ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে মো. রেজাউল করিম (৫৫) নামের এক পুলিশের এসআই নিহত হয়েছেন। রবিবার (৮ ডিসেম্বর) বিকালে খুলনা-মোংলা মহাসড়কের বাগেরহাট কোর্ট চত্বরের প্রধান ফটকের সামনে এ দূর্ঘটনা ঘটে। নিহত রেজাউল করিমের বাড়ি মাগুরা জেলায়। তিনি বাগেরহাট জেলা পুলিশের বিশেষ শাখায় (ডিএসবি) কর্মরত ছিলেন।
প্রত্যক্ষদর্শিরা জানান, এসআই রেজাউল করিম আদালতে মামলার তথ্য সংক্রান্ত কাজ শেষ করে কোর্ট এর প্রধান ফটক দিয়ে বের হচ্ছিলেন। এসময় বাগেরহাট থেকে খুলনাগামী দ্রুতগতির একটি ট্রাক তাকে সজোরে ধাক্কা দিলে ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।
বাগেরহাটের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাহফুজ আফজাল জানান, নিহত পুলিশ সদস্যের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য বাগেরহাট সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। পুলিশ ঘাতক ট্রাকটি আটক করলেও চালক পালিয়ে গেছে।

সাতক্ষীরা স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যার পর স্বামীর আত্মহত্যা

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি : সাতক্ষীরা শ্যামনগরের মুন্সিগঞ্জে স্ত্রী সোনা বিবি (৩৫) কে কুপিয়ে হত্যার পর স্বামী মান্নান গাজী (৫০) গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। শনিবার গভীররাতে উপজেলার মুন্সিগঞ্জ ইউনিয়নের জেলেখালী গাজী পাড়ায় এ ঘটনাটি ঘটে।
নিহত সোনা বিবি শ্যামনগর উপজেলার কালিঞ্চি গ্রামের সিরাজ গাজীর মেয়ে ও মান্নান গাজী একই উপজেলার মুন্সিগঞ্জ ইউনিয়নের জেলেখালী গাজী পাড়া গ্রামের মৃত সোহরাব গাজীর ছেলে।
পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, শনিবার সন্ধ্যায় তাদের স্বামী স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া হয়। এরই জের ধরে স্বামী রাতে ধারালো কুড়াল দিয়ে স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যা করে। এতে তার স্ত্রীর মাথা, ঘাড়, গলা ও হাতসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখম হয়। এরপর নিহতের স্বামী মান্নান গাজী বাড়ির পাশে একটি গাছে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করে। নিহত দম্পতির দুটি পুত্র সন্তান রয়েছে বলে তারা আরো জানান।
শ্যামনগর থানার (ওসি) তদন্ত ইয়াছিন আলম জানান, স্থানীয়দের দেওয়া খবরের ভিত্তিতে নিহত স্ত্রী সোনা বিবি ও স্বামী মান্নান গাজীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। তবে প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে, স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বিরোধের জের ধরে এঘটনা ঘটেছে। তিনি আরো জানান, নিহত স্বামী ও স্ত্রীর মরদেহ ময়না তদন্তের জন্য সাতক্ষীরা সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরন করা হয়েছে।

টেন্ডারবাজিতে ব্যস্ত ডাকসু ভিপি নুরুল হক নুর

ঢাকা অফিস : ডাকসু ভিপি নুরকে পদত্যাক করার আহ্বান জিএস গোলাম রাব্বানীর। টেন্ডারবাজি ও তদবির বাণিজ্যের অভিযোগ তুলে ডাকসু ভিপি নুরুল হক নুরকে পদত্যাগের আহ্বান জানিয়েছেন জিএস গোলাম রাব্বানী। না হলে ভিপিকে বহিষ্কার করতে ডাকসু সভাপতি মোহাম্মদ আখতারুজ্জামানকে অনুরোধ করা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

রবিবার দুপুরে, ডাকসু ভবনে সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন গোলাম রাব্বানী।

তিনি বলেন, ডাকসুর দায়িত্ব পালন না করে ভিপি পদকে ব্যবহার করে অবৈধ অর্থ উপার্জন ও টেন্ডারবাজিতে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন নুর। এ সময় ডাকসু ভিপির বিরুদ্ধে দুর্নীতি ও নৈতিকস্খলনের নানা অভিযোগ তোলেন ছাত্রলীগ প্যানেলের অন্যান্য নেতারাও। এছাড়া নিজের বিরুদ্ধে আসা অভিযোগ প্রমাণিত হয়নি বলে দাবি করেন রাব্বানী।

সম্প্রতি জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের কাছে চাঁদা দাবির অভিযোগে ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকের পদ হারান তিনি।