শেখ জুয়েল এমপি‘র হাত ধরেই খুলনার উন্নয়ন কার্যক্রম দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলছে : বাবুল রানা

বিজ্ঞপ্তি :

খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এম ডি এ বাবুল রানা বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মনে করেন আওয়ামী লীগের রাজনীতির মূলমন্ত্র হচ্ছে জনগণের কল্যাণ। তাই আমাদের কাছে রাজনীতি একটি ব্রত এবং সেই ব্রত হচ্ছে দেশ, মানুষ ও সমাজের সেবা করা। আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা এটি অনুশীলন করে বলেই করোনা মহামারির মধ্যে সারাদেশে আমাদের পক্ষ থেকে কোটি কোটি মানুষের মাঝে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। এখনো আমাদের নেতাকর্মীরা, ইউনিয়ন পর্যায় পর্যন্ত জনপ্রতিনিধিরা সমগ্র দেশে মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে ও শীতবস্ত্র বিতরণ করছে। করোনার মধ্যে, এই শীতে এবং সবসময় আওয়ামী লীগই দেশের জনসাধারণের পাশে ছিলো এবং আছে।

তিনি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধুর ভ্রাতুষ্পুত্র খুলনা-২ আসনের সংসদ সদস্য সেখ সালাহউদ্দিন জুয়েল এবং তার পরিবারের সদস্যরা করোনার শুরু হতে খুলনার অসহায় ও দুঃস্থদের মাঝে খাদ্য সহায়তা প্রদান করে আসছে। এমনকি এই শীতেও তারা দরিদ্র মানুষের শীত নিবারণের জন্য শীত বস্ত্র বিতরণ করছে। শেখ জুয়েল এমপি খুলনার উন্নয়নে জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। তার হাত ধরেই খুলনার উন্নয়নের কার্যক্রম দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলছে। তিনি করোনার নতুন ধরণ ‘ওমিক্রন’ মোকাবেলায় খুলনার সর্বস্তরের জনগনকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানান ।

বৃহস্পতিবার খুলনা-২ আসনের সংসদ সদস্য সেখ সালাহউদ্দিন জুয়েল এমপি‘র পক্ষে নগরীর ২৫, ২৬, ২৭, ৩০ ও ৩১নং ওয়ার্ডে দুঃস্থ ও অসহায় মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন। এ সকল অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক প্যানেল মেয়র মোঃ আলী আকবর টিপু, ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক মোঃ শাহজাদা, প্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পদাক কাউন্সিলর জেড এ মাহমুদ ডন, সদস্য এস এম আকিল উদ্দিন, কাউন্সিলর এস এম মোজাফফর রশিদী রেজা, মহানগর যুব লীগের আহ্বায়ক সফিকুর রহমান পলাশ, কাউন্সিলর মাহমুদা বেগম, কাউন্সিলর রেকসোনা কালাম লিলি, সোনাডাঙ্গা থানা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আব্দুল কায়উম গোরা, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শরীফ এনামুল কবির, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা মুন্সী আইয়ুব আলী, ফেরদৌস হোসেন লাবু, শেখ আব্দুল আজিজ, এ্যাড. মো. ফারুক হোসেন, নজরুল ইসলাম তালুকদার, এ্যাড. শামীম মোশাররফ, সরদার আব্দুল হালিম, মো. রুহুল আমিন, এশারুল হক, মো. সিহাব উদ্দিন, মোঃ আব্দুর রহিম, গাজী রকিব উদ্দিন সোহাগ, কবির হোসেন পলাশ, এজাজুর রহমান সুমন, বন্দে আলী সবুজ, মোঃ শফিকুল ইসলাম মোড়ল, বাদল কুমার দে, সবিহা ইসলাম আঙ্গুরা, যুব নেতা ফজলে রাব্বি, আলমগীর হোসেন সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

আপনার মতামত জানানঃ