ফুলতলায় করোনা সংক্রমন রোধে কঠোর বিধিনিষেধ ঢিলেঢালাভাবে পালিত

ফুলতলা (খুলনা) প্রতিনিধিঃ উপজেলা প্রশাসন ঘোষিত করোনা সংক্রমন রোধে ফুলতলা উপজেলার সকল বাজারে সর্বত্র কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ প্রথম দিন শুক্রবার ঢিলাঢালাভাবে পালিত হয়। করোনা প্রতিরোধ কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সকাল ৮টা থেকে কাঁচাবাজার, মুদি দোকান, সেলুন, চায়ের দোকান, মোবাইল ফ্লাক্সির দোকান, খাবারের দোকান বিকাল ৩টা পর্যন্ত খোলা রাখার নির্দেশনা থাকে। তবে গতকাল ফুলতলা বাজারের চিত্রটা ছিল ভিন্ন। অধিকাংশ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের এক সার্টার খোলা রেখে ফ্রি ষ্টাইলে চলে বিকিকিনি। তবে প্রতিষ্ঠানের কর্মচারীর হাতে মোবাইল ফোন ধরিয়ে দিয়ে বাসষ্টান্ডে ও চৌরাস্তা মোড়ে বসিয়ে দেয়া হয়। যাতে করে ভ্রাম্যমান আদালত টিম ও প্রশাসনের কর্মকর্তাবৃন্দকে দেখলেই ফোন করে সজাগ করিয়ে দিতে পারে। টহল পুলিশ দেখলেই ব্যবসায়ীদের দোকানের সার্টার টানাটানির এ লুকোচুরি চলে দিনভর। উপজেলার সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাবৃদের মানবিকতাকে বৃদ্ধাঙলি দেখিয়ে শুক্রবার সন্ধ্যায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ফুলতলা বাজারের অধিকাংশ সেলুন, খাবারের দোকান ও বিভিন্ন মোড়ে কাঁচামালের দোকান খোলা থাকতে দেখা যায়। দিনের শুরুতে কঠোর বিধিনিষেধ বিবেচনা করে স্বাস্থ্য বিধি মেনে পারিবারিক প্রয়োজনের তাগিদে অনেকে বাজারে আসেন। তবে বিকাল হতেই ফুলতলা বাজারে জামিরা সড়ক, রফিক সড়ক, শিকিরহাট মোড়, মুদি পট্টি রোড, মিঠরী দেওয়ান শাহ সড়কসহ বিভিন্ন মার্কেটের সামনে মাস্কবিহীন আড্ডাবাজদের ছিল উপচে পড়া ভিড়। এছাড়া বিভিন্ন সড়কে যাত্রীবাহী ভ্যান, ইজিবাইক, থ্রি- হুইলার অধিকাংশ চালক ও যাত্রীদের ছিল না কোন মাস্ক ও মানেনি স্বাস্থ্য বিধি। এ অবস্থা চলতে থাকলে করোনা সংক্রমন উর্দ্ধমুখী রোধকল্পে প্রশাসনের নেয়া জনকল্যাণে কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ বিফলে যাবে বলে অভিজ্ঞ মহলের আশংকা।